পাম্প বন্ধ করে মালিক উধাও, ভোগান্তিতে পর্যটকরা – Ghuri Poka – ঘুরি পোকা

পাম্প বন্ধ করে মালিক উধাও, ভোগান্তিতে পর্যটকরা

লেখক: প্রতিবেদক ঢাকা
প্রকাশ: আগস্ট ৬, ২০২২

জ্বালানি তেলের দাম বৃদ্ধির খবর ছড়িয়ে পড়ার সঙ্গে সঙ্গে পটুয়াখালীর ‘কুয়াকাটা ফিলিং স্টেশনে’ তালা ঝুলিয়ে উধাও হয়েছে কর্তৃপক্ষ। এতে ভোগান্তিতে পড়েছেন হাজারো পর্যটক।

সেখানে বিশৃঙ্খলা এড়াতে পুলিশ মোতায়েন করা হয় বলেও জানান মহিপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল খায়ের।

শুক্রবার (৫ আগস্ট) রাত ১২টার পর জ্বালানি তেলের নতুন দাম কার্যকর হবে- সরকারের এমন ঘোষণায় রাত ১০টা ৩০ মিনিটের দিকেই পাম্প বন্ধ করে সবাই চলে গেছে বলে অভিযোগ করেন জাকির নামের এক গ্রাহক।

তিনি বলেন, আমি মোটরসাইকেল নিয়ে এসেছি, তখনো পাম্পে লোক ছিল। আমি তেল চাইলে তারা বলেন, তেলের দাম বাড়ানো হয়েছে, তাই এখন হবে না, কালকে আসেন। এই বলে তারা পাম্পের অফিসে তালা মেরে চলে যান।

ঢাকা থেকে আগত পর্যটক সজিব বলেন, আমরা মাইক্রোবাস নিয়ে কুয়াকাটা এসেছি। এখন তেল দরকার, কিন্তু এসে দেখি অনেক লোক। আমিও ১ ঘণ্টা ধরে দাঁড়িয়ে আছি, কিন্তু পাম্পের লোক আসে না। আমরা অনেক ভোগান্তিতে পড়েছি।

একাধিক মোটরসাইকেল, মাইক্রোবাস ও বাসচালকও তেল নিতে এসে পাম্পের চারপাশে অপেক্ষা করছেন।

তাদের একজন বলেন, সরকারের নিয়ম অনুযায়ী রাত ১২টায় তেলের দাম বাড়বে, কিন্তু তার দেড় ঘণ্টা আগে কেন পাম্প বন্ধ করলো? আমরা কি গাড়ি পানি দিয়ে চালাবো?

কুয়াকাটা ফিলিং স্টেশনের সামনে দেওয়া নাম্বারে ফোন করলে আব্দুল কাদের নামের একজন ফোন ধরেন। তিনি বলেন, আমরা প্রতিদিন ১০টার মধ্যে পাম্প বন্ধ করে দেই। প্রতিদিনের মতো আজকেও বন্ধ করেছি।

jagonews24

তেল না দেওয়ার অভিযোগের বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, যখন বন্ধ করেছি তখন কেউ তেল নিতে আসেননি।

এদিকে ওসি আবুল খায়ের বলেন, পাম্প বন্ধের খবরে সেখানে বিশৃঙ্খলা এড়াতে পুলিশ মোতায়েন করেছি। এর কিচ্ছুক্ষণ পরই আবার তিনি মোবাইল ফোনে জানান, পাম্প খুলে দেওয়ার ব্যবস্থা করেছি।

বিশ্ববাজারের সঙ্গে সমন্বয় করে দেশের বাজারে জ্বালানি তেলের দাম বাড়ানো হয়েছে। শুক্রবার রাত ১২টা থেকে এটি কার্যকর হবে। নতুন দাম অনুযায়ী ডিজেল ও কেরোসিন প্রতি লিটার ১১৪ টাকা, অকটেন ১৩৫ এবং পেট্রল ১৩০ টাকা করা হয়েছে।